রোববার, ৩১ মে ২০২০

শহরের ১৮ এলাকা ও ৬ উপজেলায় করোনার বিস্তার

প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

প্রকাশিত: ১৮ মে ২০২০ সোমবার, ০৩:৫৮ এএম

শহরের ১৮ এলাকা ও ৬ উপজেলায় করোনার বিস্তার

চট্টগ্রামে করোনার গতির তীব্রতা বাড়ছেই। রবিবার চট্টগ্রামের ফৌজদারহাট বিআইটিআইডি, চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ ল্যাব, ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয় ও কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজে রোববারের ৫০১টি নমুনা পরীক্ষায় ৯৩ জনের করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে। এই ৯৩ জনের মধ্যে চট্টগ্রামের ৭৯ জন, বাকি ১৪ জন ভিন্ন জেলার। চট্টগ্রামের ৭৯ জনের মধ্যে পুরাতন রোগী দ্বিতীয়বার পরীক্ষায় পজিটিভ এসেছে ছয় জনের। সেই হিসেবে চট্টগ্রামের নতুন আক্রান্তের সংখ্যা ৭৩ জন।

চট্টগ্রামে সনাক্ত ৭৩ নতুন রোগী মহানগরের ১৮টি এলাকা ও ৬টি উপজেলার বলে জানা গেছে।৪৮ জন নগরের ও ২৫ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা। উপজেলার ২৫ জনের মধ্যে লোহাগাড়ার ছয় জন, বোয়ালখালীর চার জন, সীতাকুন্ডের তিন জন, পটিয়ার পাঁচজন, রাঙ্গুনিয়ার পাঁচ জন, অপর দুজনের উপজেলা জানা যায়নি। আক্রান্তদের মধ্যে ৩ জন ডাক্তার, পুলিশ ও র‌্যাবের সদস্য রয়েছেন।

এদিকে চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর পরিবারে তার স্ত্রী হাসিনা মহিউদ্দিন, ছোট ছেলে বোরহানুল সালেহীন এবং গৃহকর্মীর শরীরে করোনাভাইরাস তৃতীয় দফার পরীক্ষায়ও পজিটিভ এসেছে। তৃতীয় দফায় টেস্ট করানো এই তিনজনের নমুনা একসাথে দুটি ল্যাবে পরীক্ষা করা হয়েছিল। চশমা হিলের মেয়র গলিতে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন আরও তিনজন। তাদের সবাই নারী।

সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বী থেকে প্রাপ্ত তথ্যানুসারে জানা যায়,  চট্টগ্রামের ফৌজদারহাট বিআইটিআইডিতে ২৪৭টি নমুনার মধ্যে ৪১টি পজিটিভ পাওয়া গেছে। এই ৪১টি পজিটিভের মধ্যে চট্টগ্রামের ৪০টি ও অন্যজেলার একটি। চট্টগ্রামের ৪০টির মধ্যে মহানগরীর ২৩টি ও উপজেলার ১৭টি (বোয়ালখালীর চার, সীতাকুন্ডের তিন, পটিয়ার পাঁচ ও রাঙ্গুনিয়ার পাঁচটি)। মহানগরীর ৪০টির মধ্যে তিনটি পুরাতন, সেই হিসেবে মহানগরীতে নতুন করোনা রোগী ৩৭ জন।

চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ ল্যাবে ১৩০টি নমুনার মধ্যে ৩৪ জনের পজিটিভ পাওয়া গেছে। এই ৩৪ জনের মধ্যে চট্টগ্রামের ৩৩ জন ও একজন ভিন্ন জেলার। চট্টগ্রামের ৩৩ জনের মধ্যে মহানগরীর ৩১ জন ও উপজেলার দুই জন। তবে কোন উপজেলার তা জানা যায়নি। মহানগরীর ৩১ জনের মধ্যে তিনজন পুরাতন, সেই হিসেবে মহানগরীতে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত২৮ জন।

চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয়ে ৮৭টি নমুনার মধ্যে ১২টি পজিটিভ পাওয়া গেছে। এর সবগুলো চট্টগ্রামের বাইরের। অপরদিকে কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ ল্যাবে চট্টগ্রামের ৩৭টি নমুনার মধ্যে ৬ জনের করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে। এই ছয় জনের সবাই লোহাগাড়া উপজেলার বাসিন্দা।
বিআইটিআইডিতে শনাক্তদের মধ্যে দামপাড়া পুলিশ লাইনে ৩১, ২৭ ও ২৫ বছরের তিনজন পুরুষ, বিশ্বকলোনীতে ৪০ বছরের পুরুষ, ডায়বেটিস হাসপাতালে ৬০ বছরের পুরুষ, শ্যামলী আবাসিক এলাকায় ৩৫ বছরের পুরুষ,এছাড়া হালিশহর এলাকার ৪০ ও ৩২ বছর বয়সী দুইজন পুরুষ। পাঁচলাইশ এলাকার ৫২ বছর বয়সী পুরুষ। পাহাড়তলী এলাকার ২৬ বছর বয়সী পুরুষ। র্যা ব সেভেন এর ৩১ বছর বয়সী পুরুষ। মুরাদপুর এলাকার বাদশা মিয়া ম্যানসনের ৬৪ বছর বয়সী পুরুষ। বাকলিয়া এলাকার ৩৮ বছর বয়সী পুরুষ। ফিল্ড হাসপাতালের ২৩ বছর বয়সী পুরুষ। খুলশী এলাকার ৫০ বছর বয়সী নারী। আসকার-দিঘীর পাড় এলাকার ৩০ বছর বয়সী নারী। ডবলমুরিং থানা এলাকার ৩৯ বছর বয়সী পুরুষ।

এছাড়া সুগন্ধা আবাসিক এলাকার ছয় জন শনাক্ত হয়েছে। এরমধ্যে পাঁচজন পুরুষ ও একজন নারী। নারীর বয়স ৩৬ বছর। পুরুষদের দুইজন ষাটোর্ধ। বাকি একজনের বয়স ৫৩ এবং আরেকজনের বয়স ৪৫ বছর। কোতোয়ালি থানা এলাকার ৬২ বছর বয়সী পুরুষ। অলংকার এলাকার ৬৫ বছর বয়সী পুরুষ। সিইপিজেড এলাকার ৫৪ বছর বয়সী পুরুষ। বন্দর থানা এলাকার ৩০ বছর বয়সী পুরুষ। একজন ৫৬ বছর বয়সী পুরুষ। একজন ৩০ বছর বয়সী পুরুষ। ইপিজেড এলাকার ৩৫ ও ৩২ বছর বয়সী দুইজন পুরুষ।পতেঙ্গা এলাকার ৩১ বছর বয়সী পুরুষ। লালখান বাজার এলাকার একই পরিবারের দুইজন। একজনের বয়স ৩৮ বছর, আরেকজন ৬৫ বছর বয়সী। আগ্রাবাদ এলাকার ৩৫ বছর বয়সী পুরুষ। ফ্রিপোর্ট এলাকার একজন পুরুষ, তার বয়স জানা যায়নি।

অন্যদিকে ৬ উপজেলায় শনাক্ত হওয়া ২৫ জনের মধ্যে বোয়ালখালীতে বড়ুয়া পাড়ার ৪৮ বছরের পুরুষ, চরনদ্বীপের ১৩ বছরের কিশোর, চৌধুরী পাড়ায় ২২ বছরের তরুণ, অন্যজন ৩৮ বছর বয়সী পুরুষ, বোয়ালখালী পৌরসভার ৩০ বছর বয়সী নারী। পটিয়ায় ৫ জনের মধ্যে গোবিন্দারখীলে ২৩ বছরের তরুণ ও ৪০ বছরের নারী, পাইকপাড়ায় ৩২ ও ৫০ বছরের দুইজন পুরুষ, স্টেশন রোডে ৩৯ বছরের পুরুষ ও গোডাউন রোডে ২৫ বছরের একজন তরুণ। সীতাকুণ্ডে ২৫ বছরের ও বাঁশবাড়িয়ায় ৩৪ বছরের পুরুষ রয়েছে, রাঙ্গুনিয়ায় ৫ জনের মধ্যে শান্তির হাটের ৩২, ২৮ ও ৪২ বছরের ৩ পুরুষ, রাঙ্গুনিয়া থানায় ২৪ বছরের এক তরুণ, দক্ষিণ রাজানগরের ৬৫ বছরের এক বৃদ্ধ। হাটহাজারী ৬৫ বছর বয়সী নারী। লোহাগাড়ায় ৬ জন।

এর বাইরে চশমা হিল মেয়র গলি এলাকার নতুন চারজনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়। তার মধ্যে তিনজন নারী একজন পুরুষ। পুরুষের বয়স ৩৯ বছর। এছাড়া তিন নারীর দুইজন ৩০ বছর বয়সী এবং একজন ২৫ বছর বয়সী।

শনাক্ত হওয়া বাকিদের মধ্যে চমেক হাসপাতালের চারজন। তার মধ্যে একজন ৪৪ বছর বয়সী ডাক্তার। বাকি তিনজনের একজন ২৫ বছর বয়সী। একজন ৩২ বছর বয়সী এবং আরেকজন ৩৭ বছর বয়সী পুরুষ।

এদিকে নতুন করে ৭৩ জন করোনায় শনাক্ত হওয়ায় মোট রোগীর সংখ্যা হলো ৭৯১ জন। এনিয়ে চট্টগ্রামে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৩৩ জনে দাঁড়ালো। এছাড়া সুস’ হয়ে বাড়ি গেছেন ১০২ জন।