বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯

ডেঙ্গু কিট সংকট, কেনা হচ্ছে ৫০ লাখ

প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

প্রকাশিত: ০১ আগস্ট ২০১৯ বৃহস্পতিবার, ০৮:৪৮ এএম

ডেঙ্গু কিট সংকট, কেনা হচ্ছে ৫০ লাখ

ডেঙ্গু সনাক্তে অপরিহার্য উপকরন ডেঙ্গু কিট। এই কিটে রক্তের ফোটা দেওয়ার মাধ্যমে সহজেই ডেঙ্গুর বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়। সাধারণত এসব কিটের দাম দেড়শ‘ টাকার মধ্যে হলেও এখন দ্বিগুণ দামেও কিট মিলছে না।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে না পাওয়ায় আন্দরকিল্লার পাইকারি বাজার থেকে জরুরী ভিত্তিতে কিছু কিট সংগ্রহ করার উদ্যোগ নিয়েছিল চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা. অসীম কুমার নাথ জানান, একটি কোম্পানির কিট ২২০ টাকা ও অপর একটি কোম্পানির কিট ৩শ‘ টাকায় কেনার বিষয়ে দরদাম হয়। কিন্তু বুধবার সংগ্রহ করতে গেলে এই দামেও তারা সরবরাহ করতে পারে নি।

জেনারেল হাসপাতালের মতোই বন্দরনগরীর বিভিন্ন হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের কিটের সরবরাহে টান পড়েছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। তবে তারা এ-ও বলছেন, সংকটের আশঙ্কায় তারা আগেভাগেই কিটের পর্যাপ্ততা নিশ্চিতে দৌড়ঝাঁপ করছেন। সরকারের তরফে এ নিয়ে যথেষ্ট সচেতনতা রয়েছে বলেও দাবি তাদের।

এ অবস্থায় জরুরী ভিত্তিতে ডেঙ্গুর জীবাণু পরীক্ষার ৫০ হাজার কিট কেনা হবে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এছাড়া বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা আরও এক লাখ কিট সরবরাহ করবে বলেছে। আগামী সপ্তাহের মধ্যে ডেঙ্গু পরীক্ষা-নিরীক্ষার প্রয়োজনীয় টেস্ট কিটস বিদেশ থেকে কিনে মজুদ করবে আমদানিকারকরা।

সারাদেশে এডিস মশাবাহিত ডেঙ্গু রোগের প্রকোপ আশঙ্কাজনক হারে বৃদ্ধি পাওয়ায় সরকারি নির্দেশ ও সহযোগিতায় টেস্ট কিটস আমদানিকারকরা জরুরি ভিত্তিতে এ বিপুল সংখ্যক টেস্ট কিটস আমদানি করবে।

স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয় ও স্বাস্থ্য অধিদফতরের একাধিক দায়িত্বশীল কর্মকর্তা এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, রাজধানীসহ সারাদেশে ডেঙ্গু ছড়িয়ে পড়েছে। চলতি জুলাই মাসে ১৫ হাজার ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। বিগত বছরগুলোর অভিজ্ঞতায় আগস্ট মাসে ডেঙ্গুর প্রকোপ আরও বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে।

চলতি বছর ডেঙ্গুর ধরন (স্ট্রেইন) পরিবর্তিত হওয়ায় জনমনে এক ধরনের আতঙ্ক বিরাজ করছে। জ্বর হলেই মানুষ এখন ডেঙ্গু টেস্ট করতে হাসপাতালে ছুটছেন। হঠাৎ হাজার হাজার মানুষ ডেঙ্গু টেস্ট করায় এক শ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী ডেঙ্গু টেস্ট কিটসের দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন। এ ছাড়া চাহিদা বেশি থাকায় বাজারে ডেঙ্গু টেস্ট কিটসের সংকট সৃষ্টি হচ্ছে।

এমতাবস্থায় যেকোনো ধরনের জরুরি অবস্থা মোকাবিলায় আমদানিকারকদের সঙ্গে বৈঠক করে এক সপ্তাহের মধ্যে নতুন আমদানি ও আগের মজুত মিলিয়ে মোট ৫০ লাখ ডেঙ্গু টেস্ট কিটস মজুত করতে বলা হয়েছে।

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় ইতোমধ্যেই সরকারি মেডিকেল কলেজে জ্বরের রোগীদের জন্য ডেঙ্গুর সব ধরনের টেস্ট বিনামূল্যে এবং বেসরকারি হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ডেঙ্গু টেস্টের বিভিন্ন ফি নির্ধারণ করে দিয়েছে।