মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

ঘরে বাবার লাশ মেয়ে পরীক্ষাকেন্দ্রে

প্রতিনিধি, আনোয়ারা (চট্টগ্রাম)

প্রকাশিত: ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ বৃহস্পতিবার, ১১:০৯ পিএম

ঘরে বাবার লাশ মেয়ে পরীক্ষাকেন্দ্রে

ঘরে বাবার লাশ রেখে গতকাল বৃহস্পতিবার এসএসসি ইংরেজী দ্বিতীয় পত্র পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে আনোয়ারার এস.জে নিজাম উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী রিমা আকতার। বুধবার রাতে খাওয়া সেরে যখন প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন তখনই তার জীবনের বড় দু:সংবাদটি সামনে চলে আসে। রাত ৯টার দিকে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা যায় তার বাবা বদিউল আলম।

রাতভর কান্নাকাটিতে নির্ঘুম রাত পার করার পর রিমাকে সকালে কঠিন বাস্তবতার মুখোমুখি হতে হয়। সব শোক বুকে চেপে তাকে বসতে হয় ইংরেজী দ্বিতীয় পত্র পরীক্ষা দেওয়ার জন্য। বাড়ি থেকে ৩ কিলোমিটার দূরে আনোয়ারা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে ছিল তার পরীক্ষা কেন্দ্র। কেন্দ্রে দায়িত্বরত এক শিক্ষক জানান, পরীক্ষায় বসার পর থেকে তার চোখে অনবরত অশ্রু ঝড়েছে। ভবিষ্যৎ জীবনের কথা ভেবে সে হয়ত পরীক্ষায় বসেছিল। এমন বাস্তবতা সত্যিই বেদনাদায়ক।

রীমার পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর বেলা দুইটার কিছুক্ষণ আগে ঘর থেকে বের করা হয় তার বাবার শবদেহ। বাবার শেষ বিদায়কালে বার বার মুর্ছা যাচ্ছিলেন রিমা। এ সময় তার আহাজারি দেখে অনেকেই চোখের পানি সংবরণ করতে পারেনি।

রীমার বাড়ি আনোয়ারা উপজেলার বারখাইন ইউনিয়নের উত্তর হাজিগাঁও গ্রামে। তার বাবা হাজী বদিউল আলম ছিলেন ব্যবসায়ী। সে পাঁচ ভাইয়ের একমাত্র বোন ।