রোববার, ২৪ মার্চ ২০১৯

স্বপ্ন আমার টপ ফাইভ : জাবেদ

প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

প্রকাশিত: ১০ জানুয়ারি ২০১৯ বৃহস্পতিবার, ১০:১৬ পিএম

স্বপ্ন আমার টপ ফাইভ : জাবেদ

মন্ত্রী হিসাবে শপথ নিয়ে চট্টগ্রাম এসে আবারও ভূমি মন্ত্রণালয়কে জনবান্ধব হিসাবে গড়ে তোলার বিষয়ে দৃঢ় প্রতিজ্ঞা ব্যক্ত করলেন সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ। আগের সরকারে এই মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী থাকাকালীন সারপ্রাইজ ভিজিটসহ নানা কর্মকান্ডে আলোচিত ছিলেন চট্টগ্রাম-১৩ (আনোয়ারা কর্ণফুলী) আসনে ৩ বারের নির্বাচিত এই সংসদ সদস্য।

তিনি বলেন, ‘ভূমি মন্ত্রণালয়ে কাজের অনেক সুযোগ আছে। এই মন্ত্রণালয় জনগণকে সেবা দেওয়ার মন্ত্রণালয়। আমাদের যে টিম আছে, ডিসিসহ সংশ্লিষ্ট যারা আছেন, তাদের সবাইকে নিয়ে ভূমি মন্ত্রণালয়কে অনেকদূর এগিয়ে নিয়ে যাবো। আমার স্বপ্ন, আমি ভূমি মন্ত্রণালয়কে টপ ফাইভে নিয়ে যেতে চাই। এটা আমার চ্যালেঞ্জ। এটা আমি অবশ্যই অর্জন করবো। কোনো ব্যর্থতার দায়ভার নিয়ে আমি এই মন্ত্রণালয় থেকে যাবো না। দুর্নীতির ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স থাকবে। আমি এই মন্ত্রণালয়ে একটা বৈপ্লবিক পরিবর্তন আনবো।’

শপথ নেওয়ার পর বৃহস্পতিবার বিকালে জন্মস্থান চট্টগ্রামে ফিরে শাহ আমানত বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন।

ভূমি ব্যবস্থাপনাকে দুর্নীতিমুক্ত করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে নতুন দায়িত্ব শুরু করেন জাবেদ। সেই ওয়াদার রেশ টেনেই তিনি বলেন, “দুর্নীতির ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স থাকবে। এটাই চ্যালেঞ্জ। এটা অ্যাচিভ করব।”

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে জাবেদ বলেন, কোনো ‘ব্যর্থতা’ নিয়ে মন্ত্রণালয় ছাড়ার মানুষ আমি নই। ২০২১ সালের রূপকল্প সরকার বাস্তবায়নে কাজ করার লক্ষ্যে ‘দেশবাসী, এলাকার মানুষ ও চট্টগ্রামবাসীর’ দোয়া চান প্রয়াত আওয়ামী লীগ নেতা আখতারুজ্জামান চৌধুরী বাবুর এই ছেলে।  
সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ তার নির্বাচনি এলাকার জনগণসহ চট্টগ্রামবাসীর কাছে দোয়া চেয়ে বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমার ওপর যে আস্থা রেখেছেন, বিশ্বস্ততার মাধ্যমে সেই গুরুদায়িত্ব যেন আমি পালন করতে পারি।’

এ সময় মন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মো. ইলিয়াস হোসেন ও দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত আনোয়ারা উপজেলা চেয়ারম্যান তৌহিদুল হক চৌধুরী, কর্ণফুলী উপজেলা চেয়ারম্যান ফারুক চৌধুরী, দক্ষিণ জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আবুল কালাম চৌধুরী, আনোয়ারা উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি অধ্যাপক আবদুল মান্নান চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক এমএ মালেক, কর্ণফুলী উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক হায়দার আলী রনি, ভাইস চেয়ারম্যান দিদারুল ইসলাম, দক্ষিণ জেলা যুবলীগ সভাপতি আ ক ম টিপু সুলতান, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক পার্থ সারথি দাশ, দক্ষিণ জেলা সেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি মোহাম্মদ জোবাইর, সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী মুহাম্মদ গালিব, আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক এড. আবদুর রহিম, মাইকেল সিকদার, মৃদুল সিকদার, বিভিন্ন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ কয়েক হাজার নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

পরে ভূমি মন্ত্রীর বহরটি শত শত গাড়ি নিয়ে বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মীদের নিয়ে এয়ারপোর্ট সড়ক হয়ে চট্টগ্রাম নগরীর সার্সন রোডে নিজ বাস ভবনে পৌঁছান।

ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদের চট্টগ্রামে আসাকে কেন্দ্র করে বিমানবন্দরে চট্টলবাসীর পক্ষ থেকে তাকে সংবর্ধনা দিতে কয়েকদিন ধরেই ব্যাপক প্রস্তুতি নেওয়া হয়। দলীয় নেতা-কর্মী, সমর্থক এবং শুভানুধ্যায়ীর কাছে দুঃখ প্রকাশ করে বুধবার রাতেই সংবর্ধনা অনুষ্ঠান না করার অনুরোধ জানান সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ।

চট্টগ্রাম-১৩ (আনোয়ারা ও কর্ণফুলী) আসন থেকে তৃতীয়বার নির্বাচিত সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ  চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্সের সাবেক সভাপতি জাবেদ ২০১৩ সালে বাবার মৃত্যুর পর রাজনীতিতে আসেন।