শুক্রবার, ১০ এপ্রিল ২০২০

চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নে আলী সভাপতি শামসু সম্পাদক

প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

প্রকাশিত: ৩০ জানুয়ারি ২০২০ বৃহস্পতিবার, ১১:৪৫ পিএম

চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নে আলী সভাপতি শামসু সম্পাদক

চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের নির্বাচনে দৈনিক পূর্বকোণের মোহাম্মদ আলী ১৪০ ভোট পেয়ে সভাপতি  ও দেশ রূপান্তরের ম. শামসুল ইসলাম ২২৮ ভোট পেয়ে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন।

এছাড়া সিনিয়র সহ-সভাপতি পদে পূর্বদেশের রতন কান্তি দেবাশীষ, সহ-সভাপতি পদে জিটিভির অনিন্দ্য টিটো, যুগ্ম সম্পাদক পদে আজাদীর সবুর শুভ, অর্থ সম্পাদক পদে আজাদীর কাশেম শাহ, সাংগঠনিক সম্পাদক পদে পূর্বকোণের এস এম ইফতেখারুল ইসলাম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক পদে ইন্ডিপেন্ডেন্ট টিভির ইফতেখার উদ্দীন, নির্বাহী সদস্য মুহাম্মদ মহরম হোসাইন বিজয়ী হন।

সভাপতি পদে পূর্বকোণের মোহাম্মদ আলী ১৪০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। ১২৯ ভোট পেয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন অবজারভারের মোস্তাক আহমদ। এ পদে অন্য দুই প্রার্থী ছিলেন একাত্তর টিভির মাঈনুদ্দীন দুলাল (৭০ ভোট) এবং সদ্য সাবেক সভাপতি দি ফিনান্সিয়াল এক্সপ্রেসের নাজিমুদ্দীন শ্যামল (৪০ ভোট)।

সিনিয়র সহ সভাপতি পদে দৈনিক পূর্বদেশের রতন কান্তি দেবাশীষ ১৩০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। ১২৬ ভোট পেয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন অলোকময় তলাপাত্র।। এ পদে অন্য প্রার্থী ছিলেন কর্ণফুলীর মুজাহিদুল ইসলাম (১১৭ ভোট)।

সহ সভাপতি পদে গাজী টিভির অনিন্দ্য টিটো ১৮৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। ১৩৩ ভোট পেয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন পূর্বকোণের আবসার মাহফুজ। এ পদে অন্য প্রার্থী ছিলেন সি প্লাস টিভির আলমগীর অপু (৫৯ ভোট)।

সাধারণ সম্পাদক পদে ২২৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন দেশ রূপান্তরের ম. শামসুল ইসলাম। ১৫১ ভোট পেয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন বিগত কমিটির সাধারণ সম্পাদক, একুশে টিভির হাসান ফেরদৌস।

যুগ্ম সম্পাদক পদে ২৫৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন আজাদীর সবুর শুভ। ১১৫ ভোট পেয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন সিপ্লাস টিভির স্বরূপ ভট্টাচার্য।

অর্থ সম্পাদক পদে ১৯৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন আজাদীর কাশেম শাহ। ১২২ ভোট পেয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন নুর উদ্দিন আহমেদ। এ পদে অন্য প্রার্থী ছিলেন সৌমেন ধর (৬০ ভোট)।

সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ২২৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন পূর্বকোণের এসএম ইফতেখারুল ইসলাম। ১৫০ ভোট পেয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন ভোরের কাগজের প্রীতম দাশ।

প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক পদে ১৪৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন ইন্ডিপেন্ডেন্ট টিভির ইফতেখার ফয়সাল। ৯৫ ভোট পেয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন বাংলানিউজের আল রাহমান। এ পদে অন্য দুই প্রার্থী ছিলেন পূর্বদেশের রাহুল কান্তি দাশ (৭১ ভোট) এবং এটিএন বাংলার মো. ফরিদ উদ্দীন (৬১ ভোট)।

নির্বাহী সদস্য পদে ১৫৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন বিএনএর মো. মহররম হোসাইন। ৯২ ভোট পেয়ে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন পূর্বদেশের আবুল হোসাইন। এ পদে অন্য দুই প্রার্থী ছিলেন জয়নিউজের বিশু রায় চৌধুরী (৮৫ ভোট) এবং আবদুর রউফ পাটোয়ারী (২৪ ভোট)।

বৃহস্পতিবার (৩০ জানুয়ারি) সকাল ৯টা থেকে বিরতি ছাড়াই বিকেল ৫টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ করা হয়। মোট ৪০৪ জন সদস্যের মধ্যে নির্বাচনে ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন ৩৮২ জন।

নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক জসীম চৌধুরী সবুজ। কমিটির তিন সদস্য হলেন জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক মোহাম্মদ নিযাম উদ্দিন, মুহাম্মদ মোরশেদ আলম, মুহাম্মদ শামসুল হক ও মোহাম্মদ মামুনুর রশীদ।

এবার নির্বাচনের মনোনয়নপত্র সরবরাহ করা হয় ১৫ ও ১৬ জানুয়ারি। মনোনয়নপত্র জমা নেওয়া হয় ১৭ জানুয়ারি। পরদিন মনোনয়নপত্র বাছাই ও খসড়া তালিকা প্রকাশের পর ২০ জানুয়ারি ছিল মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের সময়। এরপর চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা প্রকাশ হয় ২১ জানুয়ারি।