সোমবার, ২৭ মে ২০১৯

চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব নির্বাচন যে কোন দিন

প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

প্রকাশিত: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ মঙ্গলবার, ১১:৪৩ পিএম

চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব নির্বাচন যে কোন দিন

চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব নির্বাচনের ওপর হাইকোর্টের দেওয়া স্থগিতাদেশ ৮ সপ্তাহের জন্য স্থগিত করেছেন সুপ্রিম কোর্টের চেম্বার আদালত। এর ফলে এ সময়ের মধ্যে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের নির্বাচন অনুষ্ঠানে আর কোনও আইনগত বাধা রইলো না বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

মঙ্গলবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি মো. নূরুজ্জামানের আদালত এ আদেশ দেন।

এ আদেশের পর খুব সংক্ষিপ্ত সময়ে মধ্যে নির্বাচন আয়োজনে প্রস্তুতি শুরু করেছে প্রেসক্লাবের নির্বাহী কমিটি ও নির্বাচন পরিচালনা কমিটি।

আদেশের বিষয়ে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম সাংবাদিকদের বলেন, হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের করা আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্টের দেয়া আদেশ আট সপ্তাহের জন্য স্থগিত করেছেন। এখন চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের নির্বাচন করতে আর কোনো বাধা নেই।

এর আগে গত ২৯ জানুয়ারি এক আবেদনের শুনানি নিয়ে হাইকোর্ট নির্বাচনের ওপর স্থগিতাদেশ দেন। ওই আদেশের পর ৩০ জানুয়ারি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়নি।

হাইকোর্টের আদেশের পর আবেদনকারীর আইনজীবী অজি উল্লাহ জানিয়েছিলেন, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের নতুন গঠনতন্ত্র চ্যালেঞ্জ করে গত ১৫ জানুয়ারি বিচারিক আদালতে মামলা করেন সাংবাদিক হাসান ফেরদৌস। পরদিন ১৬ জানুয়ারি প্রেসক্লাবের নির্বাচন স্থগিত চেয়ে আদালতে পুনরায় একটি আবেদন করেন তিনি। কিন্তু বিচারিক আদালত নির্বাচনের ওপর কোনো স্থগিতাদেশ না দিয়ে আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি আবেদনটির ওপর শুনানির দিন ধার্য করেন।এ অবস্থায় তিনি হাইকোর্টে আবেদন করেন। সেই আবেদনের ওপর শুনানি শেষে নির্বাচন স্থগিত করে আদেশ দিয়ে ২৪ তারিখ ওই আবেদনের ওপর শুনানি করতে বলেছেন হাইকোর্ট।

চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব সূত্র জানায়, আদালতের আদেশ পাওয়ার পর মঙ্গলবার চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দ এক দফা অনানুষ্ঠানিক বৈঠক করেন। বুধবার ক্লাবের নির্বাহী কমিটি আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচন পরিচালনা কমিটিকে চেম্বার জজের আদেশের বিষয়ে অবহিত করবেন। এরপরই নির্বাচন পরিচালনা কমিটি নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করবেন।

প্রেসক্লাবের এক কর্মকর্তা জানান, যে কান সময় নির্বাচন হতে পারে। ২৩ ফেব্রুয়ারি হওয়ারও একটি সম্ভাবনা আছে। সল্প সময়ের নোটিশে নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করা হবে বলে জানান তিনি।

এদিকে যে কোন সময় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে এই সম্ভাবনা থেকে প্রার্থীরা আবারও গণসংযোগ শুরু করেছেন। আদেশের পর থেকে প্রার্থীরা বিভিন্ন হাউসে হাউসে গিয়ে ভোটারদের কাছে ভোট চেয়েছেন।  
সর্বশেষ তফশিল অনুযায়ী দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে ১৫ পদের বিপরীতে ৩৮ জন প্রার্থী বিভিন্ন পদে প্রতিদ্ধন্দ্বিতা করছেন।

সভাপতি পদে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আলহাজ্ব আলী আব্বাস, পূর্বদেশ পত্রিকার যুগ্ম সম্পাদক আবু তাহের মুহাম্মদ, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি এজাজ ইউসুফী, জসীম চৌধুরী সবুজ, সিনিয়র সহ-সভাপতি পদে আসিফ সিরাজ ও সালাউদ্দিন মো. রেজা, সহ-সভাপতি পদে নিরুপম দাশ গুপ্ত ও মনজুর কাদের মনজু, সাধারণ সম্পাদক পদে বর্তমান সাধারণ সম্পাদক শুকলাল দাশ, যুগ্ম সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ, যুগ্ন সম্পাদক পদে আলমগীর সবুজ, নজরুল ইসলাম ও শহীদুল্লাহ শাহরিয়ার, অর্থ সম্পাদক পদে তৌফিকুল ইসলাম বাবর ও দেবদুলাল ভৌমিক, সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে মোহাম্মদ শাহ আজম ও রুপম চক্রবর্তী, ক্রীড়া সম্পাদক পদে দেবাশীষ বড়ুয়া দেবু ও রুবেল খান, গ্রন্থাগার সম্পাদক পদে জসীম উদ্দিন ছিদ্দিকী, মো. শওকত ওসমান, শহীদুল ইসলাম ও রাশেদ মাহমুদ, সমাজসেবা ও আপ্যায়ন সম্পাদক পদে মো. আয়ুব আলী ও রোকসারুল ইসলাম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক পদে আলীউর রহমান ও মিন্টু চৌধুরী।

এ ছাড়া কার্যকরী সদস্যের ৪টি পদে মঞ্জুরুল আলম মঞ্জু, আবুল মনসুর, আল রহমান, কামাল উদ্দিন খোকন, মইনুদ্দিন কাদেরী শওকত, মোহাম্মদ আলী, মো.শামসুল ইসলাম, রাজেশ চক্রবর্তী, শামশুল হুদা মিন্টু ও স.ম ইব্রাহীম ও তাপস বড়ুয়া রুমু।