রোববার, ২১ জুলাই ২০১৯

জিএম কাদের আউট, এরশাদের আস্থায় রওশন

প্রতিবেদক, ঢাকা

প্রকাশিত: ২৩ মার্চ ২০১৯ শনিবার, ০৭:৫৮ পিএম

জিএম কাদের আউট, এরশাদের আস্থায় রওশন

জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান পদ থেকে জিএম কাদেরকে গতকাল শুক্রবার অব্যাহতি দিয়েছেন দলটির চেয়ারম্যান এইচএম এরশাদ। নিজের ভাইকে পদচ্যুত করার কারণ হিসেবে অর্পিত দায়িত্ব পালনে ব্যর্থতা ও দলের মধ্যে বিভাজন সৃষ্টিকে দায়ী করেছেন এরশাদ।

শুক্রবার এরশাদ তার বিবৃতিতে বলেছেন যে তিনি আগেই ঘোষণা দিয়েছিলেন যে তার অবর্তমানে দলের সার্বিক দায়িত্ব পালন করবেন কাদের। সেই সঙ্গে দলের আগামী কাউন্সিলে তিনি দলের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবেন। কিন্তু এখন এরশাদ বলছেন, “কিন্তু দলের বর্তমান অবস্থা বিবেচনায় আমি আমার পূর্বের ঘোষণা থেকে সরে এসেছি।”

এরশাদ আরও বলেছেন, কাদের তার দায়িত্ব পালনে সম্পূর্ণভাবে ব্যর্থ হয়েছেন। এ কারণেই দলের সাংগঠনিক কার্যক্রম গতি হারিয়েছে। কাদেরের নেতৃত্ব সম্পর্কে দলের জ্যেষ্ঠ নেতারা হতাশা ব্যক্ত করেছেন। তবে তিনি দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য হিসেবে থাকবেন। এর আগে গত ১ জানুয়ারি হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ এক বিবৃতিতে তাঁর অবর্তমানে  ভাই জিএম কাদেরকেই পার্টির চেয়ারম্যান হিসাবে  তার উত্তরসুরি ঘোষণা দেন।

এদিকে জিএম কাদেরকে কো-চেয়ারম্যান পদ থেকে অব্যাহতির পর জাতীয় পার্টির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান রওশন এরশাদকে সংসদের বিরোধী দলীয় উপনেতা হিসেবে মনোনীত করেছেন দলটির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। তার ডেপুটি প্রেস সেক্রেটারি খন্দকার দেলোয়ার জালালী এর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এরশাদ তার সাংগঠনিক নির্দেশে বলেন, "সংসদীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদেরকে অপসারণ করে রওশন এরশাদকে মনোনীত করা হলো"।
এরশাদ গঠনতন্ত্রের ২০১ক ধারা মোতাবেক এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। তার এই মনোনয়ন গ্রহণের জন্য স্পিকারের কাছে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার (২২ মার্চ) রাতে জিএম কাদেরকে পার্টির কো চেয়ারম্যানের পদ থেকে অপসারণ করেন এরশাদ।

এর আগে ২০১৬ সালেও ভাই কাদেরকে কো-চেয়ারম্যান করলে দলের একটি অংশ ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে। পরে জ্যেষ্ঠ কো-চেয়ারম্যানে পদ সৃষ্টি করে তাতে স্ত্রী রওশনকে বসান এরশাদ।

তার আগে এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদারকে সরিয়ে জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলুকে মহাসচিব করেছিলেন এরশাদ। রওশন সমর্থক হিসেবে পরিচিত বাবলুকে কটাক্ষ করে এক মন্তব্যের জন্য তখন একবার ভাই কাদেরকে সতর্ক করে নোটিস পাঠিয়েছিলেন এরশাদ।

দলের সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান রওশন এরশাদের সঙ্গেও জিএম কাদেরের দ্বন্দ্ব পুরনো। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর দলের নীতি-নির্ধারণী পর্যায়ের নানা বৈঠকে দুজন দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়েছিলেন বলে স্বীকার করেছিলেন খোদ জিএম কাদের।