বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯

আমি আওয়ামী লীগের কর্মী, এটাই বড় পরিচয়

রেহানা বেগম রানু

প্রকাশিত: ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ রবিবার, ০৯:২৫ পিএম

আমি আওয়ামী লীগের কর্মী, এটাই বড় পরিচয়

সংরক্ষিত নারী আসনের এমপিদের নাম ঘোষণার পর অজস্র, অসংখ্য আকুতি, মনোবেদনার নোটিশ আমার কাছে- আপা আপনাকে এবার বড় বেশি আশা করেছিলাম। ভেবেছিলাম এবার অন্তত আপনার মূল্যায়ন হবে। কিন্তু এ কী হলো!`

কথাগুলো বলতে গিয়ে অনেক শুভার্থীকে আবেগাপ্লুত হতেও দেখেছি। তাদের জন্য আমার কথা ছিল একটাই- এমপি-মন্ত্রী এসব আল্লাহর দান। আল্লাহ আমার কপালে রাখলে নিশ্চয় একদিন হবো। সেই দিন, ক্ষণটির এক সেকেন্ডও আগে নয়। এটা আমি বিশ্বাস করি।

আমার ভক্ত, সতীর্থ, শুভানুধ্যায়ী, অনুসারীদের উদ্দেশ্যে বলতে চাই- আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের কষ্টিপাথরে যাচাই করা এক তৃণমূলকর্মী। কমিটমেন্ট থেকে রাজনীতি করেছি। রাজনীতি থেকে কী পেয়েছি তার চেয়ে বড় কথা কী দিতে পেরেছি। দল ও নেত্রীর দুঃসময়ে কাজ করেছি। ভবিষ্যতেও করে যাব। আমি আওয়ামী লীগের একজন কর্মী- আমৃত্যু এটাই আমার কাছে সব থেকে বড় পরিচয়।

আমি মনে করি, দেশের সামগ্রিক মুক্তির জন্য একটা বড় সময় পর্যন্ত জননেত্রী শেখ হাসিনার রাষ্ট্রক্ষমতায় থাকা উচিত। প্রিয়নেত্রী শেখ হাসিনা টানা তৃতীয়বার প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন, ১০ বছরের বেশি রাষ্ট্রক্ষমতায়। আমার মতো তৃণমূলের একজন দায়িত্বশীল কর্মীর কাছে এর চেয়ে বড় স্বস্তি, বড় প্রাপ্তি কী হতে পারে।

আগেও বলেছি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্ত আমার কাছে শিরোধার্য্য। তাঁর সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাই। প্রাণখোলা অভিনন্দন কানিজ আপা, ওয়াসিকা আপা, খাদিজাতুল আনোয়ার সনিসহ নতুন এমপিদের।

লেখক : সাবেক সংরক্ষিত কাউন্সিলর।