শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮

‘হাসিনা’ আবেগাপ্লুত ৭০ মিনিট

প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

প্রকাশিত: ১৬ নভেম্বর ২০১৮ শুক্রবার, ০৭:৩২ পিএম

‘হাসিনা’ আবেগাপ্লুত ৭০ মিনিট

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সংগ্রামী জীবন নিয়ে প্রথমবারের মতো নির্মিত পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘হাসিনা, অ্যা ডটারস টেল’ দেখা যাবে অনন্য সাধারণ এক ব্যক্তিত্বকে। যিনি চেনা-জানা প্রধানমন্ত্রী বা আওয়ামীলীগ সভাপতির পরিচয়ের বাইরের এক ভিন্ন মানুষ।

‘হাসিনা, অ্যা ডটারস টেল’ চলচ্চিত্রটি নির্মিত হয়েছে অনেকটা নীরবেই। ৭০ মিনিট দৈর্ঘ্যের এই চলচ্চিত্রে শেখ হাসিনাকে একজন মমতাময়ী মা, স্নেহময়ী বোন এবং দায়িত্বশীল একজন জনপ্রতিনিধি হিসেবে তুলে ধরা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় পিপলু খান নির্মিত প্রামাণ্যচিত্রটির প্রিমিয়ার শো অনুষ্ঠিত হয় বসুন্ধরা সিটির স্টার সিনেপ্লেক্সে।

শুক্রবার চলচ্চিত্রটি মুক্তি পেয়েছে চট্টগ্রামের সিলভার স্ক্রিন ও  রাজধানীর ব্লকবাস্টার সিনেমা, স্টার সিনেপ্লেক্স, মধুমিতা সিনেমা হলে। আওয়ামী লীগের গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই) ও অ্যাপেলবক্স ফিল্মস-এর যৌথ প্রযোজনায় এটি নির্মাণ করেছেন রেজাউর রহমান খান পিপলু। ছবিটির চিত্রগ্রহণে ছিলেন সাদিক আহমেদ।

শুক্রবার সকালে ষোলশহরের ফিনলে ভবনের সিনেপ্লেক্সে দর্শক সারিতে বসে  নেতা-কর্মীদের নিয়ে সিনেমাটি  উপভোগ করলেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি এ বি এম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি। এ সময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন সাংবাদিক নিরুপম দাশ গুপ্ত।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার ছোট বোন শেখ রেহানা যখন নিজেদের মধ্যে স্মৃতিচারণ করে  কথা বলছিলেন, তখন উপস্থিত দর্শকদের চোখ টলমল করছিল। চোখের জল ধরে রাখতে পারেননি   এ বি এম ফজলে করিম চৌধুরীও।

ছবিটির একটি দৃশ্যের বর্ণনা দিয়ে তিনি বলেন,  শেখ হাসিনা বলছিলেন ১৯৭৫ সালের ১৪ আগস্ট রাতে ক্যান্ডেল নাইট ডিনারের আয়োজন করেন বেলজিয়ামে বাংলাদেশের তৎকালীন রাষ্ট্রদূত সানাউল হক। ১৫ আগস্ট ভোরে জার্মানির রাষ্ট্রদূত হুমায়ুন রশীদ চৌধুরীর ফোনে জানতে পারেন তাদের পিতা বাঙালি জাতির সূর্য সন্তান শেখ মুজিবকে সপরিবারে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে।

কী নিষ্ঠুর সানাউল হক !! আগের দিন তিনি ক্যান্ডেল নাইট ডিনার দিলেন, সকালে ঘুম চোখে দুই সন্তান তাদের পরমারাধ্য পিতা-মাতাসহ নিকটজনদের মৃত্যুর ঘটনা শুনে হতবিহ্বল, দিশেহারা। ওই অবস্থায় সানাউল হক হুমায়ুন রশীদকে বলেন, বোঝা দুটিকে নিয়ে যান !!!

হুমায়ুন রশীদ যখন শেখ হাসিনা, শেখ রেহানা ও হাসিনার অবুঝ দুই সন্তানকে জার্মানিতে আনার ব্যবস্থা করতে একটি গাড়ি চেয়েছিলেন। প্রতিউত্তরে সানাউল হক বলেন, তার গাড়ি খারাপ !!

ঢাকায়ও  ‘হাসিনা: অ্যা ডটারস টেল’ দেখার পর  আবেগাপ্লুত হয়েছেন অনেকে।  অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবুল মুহিত এটাকে কালোত্তীর্ণ আখ্যা দিয়ে মন্ত্রী পরিষদের বয়োজৈষ্ঠ্য এই সদস্য বলেন, ‘হাসিনা: অ্যা ডটারস টেল’ অভূতপূর্ব ও কালোত্তীর্ণ একটি ছবি! এটা শুধু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে, একটি মানুষের জীবনের বিভিন্ন দিক সেখানে প্রতিফলিত হয়েছে। অত্যন্ত সার্থক ছবি। অনেক কিছু নতুন জানলাম। অসম্ভব টাচি একটি সিনেমা এটি।

এরআগে ‘হাসিনা’র মতো কোনো ছবি পর্দায় দেখে এতোটা স্পর্শ করেনি জানিয়ে সাবেক ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, আমার এই সত্তর বছর বয়সে পর্দায় যা দেখেছি ‘হাসিনা’ দেখার মতো অভিজ্ঞতা আমি পাইনি। এটা অসাধারণ একটি বায়োপিক।

তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেন, মানবতার যে স্তরগুলো আছে আমার মনে হয় সবগুলো স্তরকে স্পর্শ করেছে, সবগুলো স্তরকে অতিক্রম করেছে ‘হাসিনা: ডটারস টেল’ ছবিটি।