ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৮

প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলায় বাংলাদেশ পারদর্শি : প্রধানমন্ত্রী

সারাবেলা ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০ অক্টোবর ২০১৮ বুধবার, ০৭:৩৭ এএম

প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলায় বাংলাদেশ পারদর্শি : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলায় বাংলাদেশ যথেষ্ট পারদর্শিতা অর্জন করেছে। সাইক্লোন বা যেকোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ আসুক সেগুলো আমরা এখন মোকাবিলা করতে পারি।’

মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর একটি হোটেলে দ্বিতীয় সাউথ এশিয়া মেরিটাইম অ্যান্ড লজিস্টিক ফোরামের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বদ্বীপে কিছু প্রতিকূলতা থাকে। সে প্রতিকূলতার সম্মুখীন আমরা বারবার হচ্ছি। কিন্তু যেকোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলায় বাংলাদেশ যথেষ্ট পারদর্শিতা অর্জন করেছে। সাইক্লোন বা যেকোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ আসুক সেগুলো আমরা এখন মোকাবিলা করতে পারি। আর সেদিকে লক্ষ্য রেখেই আমরা সকল উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ করে তা বাস্তবায়ন করে যাচ্ছি।’

আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক প্রেক্ষাপটে নৌপরিবহন খাতের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট শিল্প উদ্যোক্তাদের বিনিয়োগে আকৃষ্ট করতে ও নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবনে গঠিত হয়েছিল ‘সাউথ এশিয়া মেরিটাইম অ্যান্ড লজিস্টিকস ফোরাম।’ তারই দ্বিতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে ঢাকায়। যেখানে ভারত, শ্রীলঙ্কা, মিয়ানমার ও ভুটানের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রী, উচ্চপদস্থ সরকারি কর্মকর্তাসহ ২০টি দেশের প্রতিনিধিরা অংশ নিচ্ছেন।

মঙ্গলবার বিকেলে দুই দিনব্যাপী এই সম্মেলনের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় রাখা বক্তব্যে নদী ও নৌপথের উন্নয়নে নেওয়া বর্তমান সরকারের নানা কর্মকাণ্ডের কথা তুলে ধরেন শেখ হাসিনা। নৌপরিবহন খাতের সম্ভাবনাকে কাজে লাগিয়ে দক্ষিণ এশিয়ার মানুষের জীবনমানই বদলে দেওয়া সম্ভব বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বৈশ্বিক অর্থনীতি, প্রবৃদ্ধি, বাণিজ্য ও বাজার সম্প্রসারণের ফলে দক্ষিণ এশিয়া আকর্ষণীয় কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে। ফলে এ অঞ্চলে শস্য সরবরাহ, সামুদ্রিক পরিষেবা প্রসারিত করার একটা বিশাল সুযোগও সৃষ্টি হয়েছে। নৌপরিবহন খাতে দক্ষিণ এশিয়ায় রয়েছে বিপুল সম্ভাবনা। কাজেই এ খাতকে যথাযথ ভাবে কাজে লাগিয়ে এ অঞ্চলের জনগণের আর্থ সামাজিক উন্নয়নে অবদান রাখা সম্ভব।’

বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় নৌপরিবহন খাতের সম্ভাবনা কাজে লাগাতে চায় সরকার। আবার বন্যা, ঘুর্ণিঝড়ের মতো প্রাকৃতিক দুর্যোগের কথা মাথায় রেখে উন্নয়ন পরিকল্পনা নেওয়া হচ্ছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।

দক্ষিণ এশিয়ার নৌপরিবহন খাতের সমস্যা, সম্ভাবনা, চ্যালেঞ্জ ও তার সমাধান বিষয়ে আলোচনার পর প্রয়োজনীয় সুপারিশ তুলে ধরা হবে এই সম্মেলন থেকে।

বার্তা সংস্থা বাসস জানায়, নৌপরিবহনমন্ত্রী মো. শাজাহান খান অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। ভারতের সড়ক ও নৌপরিহনমন্ত্রী মানসুখ মান্দাভিয়া, শ্রীলঙ্কার ন্যাশনাল পলিটিক্স অ্যান্ড ইকোনমিক অ্যাফেয়ার্স বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ড. হর্ষ ডি সিলভা, ইন্ডিয়া গেটওয়ে মিডিয়া প্রাইভেট লিমিটেডের এডিটর ইন চিফ রাম প্রসাদ রবি এবং বাংলাদেশ নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আব্দুস সামাদ অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন।

বাংলাদেশের নৌপরিবহন খাত নিয়ে অনুষ্ঠানে একটি সংক্ষিপ্ত ভিডিও উপস্থাপনা পরিবেশিত হয়।