শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮

চট্টগ্রামে দুই দিনে আওয়ামীলীগের আসনপ্রতি প্রার্থী ৯ জন

প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

প্রকাশিত: ১১ নভেম্বর ২০১৮ রবিবার, ০৮:০৯ এএম

চট্টগ্রামে দুই দিনে আওয়ামীলীগের আসনপ্রতি প্রার্থী ৯ জন

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন ফরম বিক্রির দ্বিতীয় দিনে শনিবার চট্টগ্রাম জেলার ১৬ আসনে ৭৪ প্রার্থী মনোনয়ন ফরম তুলেছেন। এ নিয়ে দুই দিনে ফরম কিনলেন ১৪২ সম্ভাব্য প্রার্থী। আসনপ্রতি গড়ে মনোনয়ন প্রত্যাশী দাড়াল প্রায় ৯ জন।

জেলার বাইরে বৃহত্তর চট্টগ্রামের খাগড়াছড়ি ও বান্দরবান থেকে ৪জন করে ৮জন ফরম তুলেছেন। আর চট্টগ্রাম বিভাগে সব মিলিয়ে ২৫৮ জন সম্ভাব্য প্রার্থী ফরম কিনেছেন।

তবে দুই দিন হয়ে গেলেও চট্টগ্রাম-১৩ (আনোয়ারা-কর্ণফুলী) আসনে কেউ ফরম তুলেন নি।আগের দিন তুলেছিলেন ২২১ জন। আর আসন হিসাবে সবচেয়ে বেশি ফরম বিক্রি হয়েছে চন্দনাইশে ১৮টি।

দ্বিতীয় দিনে চট্টগ্রাম-১ মীরসরাই আসন থেকে ফরম সংগ্রহ করেছেন দুইজন। গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনের ছেলে এবং জেলা আওয়ামীলীগের প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মাহবুব উর রহমান রুহেল এবং স্বপন চৌধুরী।  এই আসনে সম্ভাব্য প্রার্থীর সংখ্যা এখন তিনজন।

চট্টগ্রাম-২ ফটিকছড়ি)সংসদীয় আসনে গতকাল শনিবার ফরম কিনেছেন ব্যারিস্টার কাজী মোহাম্মদ তানজীবুল আলম, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য সম্পাদক ফখরুল আনোয়ার, উপজেলা চেয়ারম্যান মোহাম্মদ তৌহিদুল আলম, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আফতাব উদ্দিন চৌধুরী, হোসাইন মো. আবু তৈয়ব, প্রকৌশলী রাজীব বড়ুয়া এবং সৈয়দা রাজিয়া মোস্তফা। দুইদিনে মোট ১২ জন সম্ভাব্য প্রার্থী এই আসন থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।

চট্টগ্রাম-৩ (সন্দ্বীপ) সংসদীয় আসনে গতকাল ফরম কিনেছেন বিপিএমপিএ’র মহাসচিব ও বিএমএ নেতা ডা. মো. জামাল উদ্দিন চৌধুরী, পৌর মেয়র জাফর উল্লাহ, মো. শওকত হোসেন চৌধুরী, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মু. রাজিবুল আহসান এবং রিদওয়ানুল বারী। এই আসনে গতকাল পর্যন্ত সম্ভাব্য প্রার্থীর সংখ্যা সাত জন।

চট্টগ্রাম-৪ (সীতাকুন্ড ও চসিক আংশিক) সংসদীয় আসনে গতকাল ফরম কিনেছেন বর্তমান সাংসদ দিদারুল আলম, আবদুল্লাহ আল বাকের ভুঁইয়া, শিল্পপতি মোহাম্মদ ইমরান, মো. হায়দার আলী চৌধুরী, বদিউল আলম, মহিউদ্দিন আহমেদ মঞ্জু, মোহাম্মদ পারভেজ উদ্দিন, রতেন্দু ভট্টাচার্য্য। দুই দিনে মোট সম্ভাব্য প্রার্থীর সংখ্যা হল ১২ জন।

চট্টগ্রাম-৫ (হাটহাজারী উপজেলা ও চসিক আংশিক) সংসদীয় আসনে প্রথম দিন কেউ মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেননি। গতকাল দ্বিতীয় দিনে ফরম নিয়েছেন সাত জন। তারা হলেন নগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি এডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ইউনুছ গণি চৌধুরী, আওয়ামী লীগ নেতা মাহমুদ সালা উদ্দিন চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা মনজুরুল আলম চৌধুরী, মুহাম্মদ শাহজাহান চৌধুরী, মোহাম্মদ নাছির হায়দার করিম এবং মাসুদুল আলম।

চট্টগ্রাম-৬ রাউজানআসনে গতকাল কিনেছেন ব্যারিস্টার ইমরানুল কবির। শুক্রবার এই আসন থেকে ফরম কিনেছিলেন বর্তমান সাংসদ এ বি এম ফজলে করিম চৌধুরী।

চট্টগ্রাম-৭ (রাঙ্গুনীয়া ও বোয়ালখালীর শ্রীপুর-খরণদ্বীপ ইউপি) সংসদীয় আসনে গতকাল ফরম কিনেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ও বর্তমান সাংসদ ড. হাছান মাহমুদ।

চট্টগ্রাম-৮ (বোয়ালখালী ও চসিক আংশিক) সংসদীয় আসনে গতকাল ফরম কিনেছেন সিডিএ চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম, নগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মো. রেজাউল করিম চৌধুরী, প্যানেল মেয়র জোবাইরা নার্গিস খান, আওয়ামী লীগ নেতা নওশাদ মাহমুদ চৌধুরী রানা, আশেক রসুল খান এবং এস এম কফিল উদ্দিন। গতকাল পর্যন্ত এই আসনে প্রার্থীর সংখ্যা ১০ জন।

চট্টগ্রাম-৯ (বাকলিয়া-কোতোয়ালী) সংসদীয় আসনে গতকাল পর্যন্ত সম্ভাব্য প্রার্থীর সংখ্যা ১৭ জন। গতকাল ফরম কিনেছেন নগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি এডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, সিডিএ চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম, নগর আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক মো. রেজাউল করিম চৌধুরী  মো. জাহাঙ্গীর আলম, নগর আওয়ামী লীগ নেতা এম এ রশিদ, চট্টগ্রাম মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক মোহাম্মদ দিদারুল আলম, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সহসভাপতি রিয়াজ হায়দার চৌধুরী, কোতোয়ালী থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাসান মনসুর, এবং সামসু উদ্দিন সিদ্দিকি( মুন্না শাহ) ।

চট্টগ্রাম-১০ ডবলমুড়িং সংসদীয় আসনে গতকাল ফরম কিনেছেন সাবেক মেয়র এম মনজুর আলম, বিএমএ’র কেন্দ্রীয় সহসভাপতি ডা. শেখ মোহাম্মদ শফিউল আজম, নগর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক মহিউদ্দিন বাচ্চু, বিজিএমইএ’র প্রথম সহসভাপতি মো. মঈন উদ্দিন আহম্মেদ মিন্টু। গতকাল শনিবার পর্যন্ত এই আসনে মোট সম্ভাব্য প্রার্থীর সংখ্যা ১১ জন।

চট্টগ্রাম-১১ বন্দর-পতেঙ্গা সংসদীয় আসনে গতকাল ফরম কিনেছেন সাংসদ এম এ লতিফ, আওয়ামী লীগ নেতা শেখ মাহমুদ ইসহাক, মো. ইলিয়াছ, এম এনামুল হক চৌধুরী।

চট্টগ্রাম-১২ (পটিয়া) সংসদীয় আসনে গতকাল নিয়েছেন জেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরী এবং উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আ ক ম শামশুজ্জামান, বর্তমান এমপি শামসুল হক চৌধুরীর ছেলে নাজমুল করিম চৌধুরী ও সৈয়দ মোহাম্মদ ইছমাইল(বিপ্লব)।  দুই দিনে সম্ভাব্য প্রার্থীর সংখ্যা আট জন।

চট্টগ্রাম-১৩ (আনোয়ারা ও কর্ণফুলী) গতকাল দ্বিতীয় দিনেও এই সংসদীয় আসন থেকে কেউ মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেননি।

চট্টগ্রাম-১৪ (চন্দনাইশ-সাতকানিয়া আংশিক) সংসদীয় আসনে গতকাল ফরম কিনেছেন দক্ষিণ জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি শাহিদা আকতার জাহান, চেয়ারম্যান মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান, এ কে এম নাজিম উদ্দিন, আফতাব মাহমুদ, অরিফুল ইসলাম চৌধুরী, মাহবুবুর রহমান, এবং আবু সাঈদ। দুইদিনে এই আসনে মোট ১৮ জন সম্ভাব্য প্রার্থী ফরম সংগ্রহ করেছেন।

চট্টগ্রাম-১৫ (লোহাগাড়া-সাতকানিয়া আংশিক) সংসদীয় আসনে গতকাল ফরম সংগ্রহ করেন স্বাচিপ কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. আ ম ম মিনহাজুর রহমান,  এডভোকেট কামরুন নাহার, দেলোয়ার হোসেন, মো. এরশাদুল হক এবং মোহাম্মদ ফরিদুল ইসলাম। প্রথম দিন সংগ্রহ করেছিলেন ৯ জন সম্ভাব্য প্রার্থী।

চট্টগ্রাম-১৬ (বাঁশখালী) সংসদীয় আসনে গতকাল ফরম কিনেছেন বর্তমান সাংসদ মোস্তাফিজুর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল গফুর, জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সাংসদ সুলতানুল কবির চৌধুরীর ছেলে চৌধুরী মো. গালিব এবং সাইফুদ্দিন আহমেদ রবি।

বান্দরবান : এই আসন থেকে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরম নিয়েছেন চারজন। এরা হলেন- সংসদ সদস্য বীর বাহাদুর উশৈসিং, জেলা আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত সভাপতি প্রসন্ন কানিত্ম তঞ্চঙ্গ্যা, বহিস্কৃত সাধারণ সম্পাদক কাজী মুজিবুর রহমান এবং আওয়ামী লীগ নেতা থুইনু মং মারমা।

খাগড়াছড়ি : এই আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন চারজন। এরা হলেন- খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, সহ-সভাপতি অধ্যড়্গ সমীর দত্ত চাকমা,সাবেক খাগড়াছড়ির আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক সংসদস সদস্য যতীন্দ্র লাল এবং আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য ভবেশ্বর রোয়াজা নিকি রোয়াজা।

নির্বাচন পরিচালনা উপ-কমিটির সদস্য আরশেদুল আলম বাচ্চু  জানান, মনোনয়ন ফরম বিক্রির পাশাপাশি অনেক প্রার্থী তা পূরণ করে জমাও দিচ্ছেন। অত্যন্ত সুন্দর পরিবেশে সুশৃঙ্খলভাবে প্রার্থীরা মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করে তা জমা দিচ্ছেন বলে জানান তিনি।