রোববার, ৩১ মে ২০২০

ডেঞ্জারজোন পটিয়া : করোনা রোগী বাড়ছে যে কারণে

কাউছার আলম,পটিয়া

প্রকাশিত: ২৩ মে ২০২০ শনিবার, ১০:০৮ পিএম

ডেঞ্জারজোন পটিয়া : করোনা রোগী বাড়ছে যে কারণে

করোনার ডেঞ্জারজোন হয়ে উঠেছে চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলা। জেলার ১৫ উপজেলার মধ্যে এখানেই সনাক্ত হযেছে সর্বোচ্চ সংখ্যক করোনা পজেটিভ রোগী। সচেতনতার অভাবেই পটিয়ায় করোনা রোগী বাড়ছে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সূত্রে জানা যায়, উপজেলায় এ পর্যন্ত ৫৭ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। গত মাসের ১২ এপ্রিল ৬ বছরের এক শিশুর শরীরে প্রথম করোনা শনাক্ত হয়। ঐ দিন রাতে জেনারেল হাসপাতালে শিশুটির মৃত্যু হয়েছে। কয়েকদিন আগে পটিয়ায় একটি পরিবারের একজনের সংস্পর্শে আসা ঐ পরিবারের শিশু সহ ৯ জনের করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়। এরপর থেকেই সংখ্যাটা হু হু করে বাড়তে থাকে। বাদ যায় নি পটিয়া হাসপাতালের করোনার নমুনা সংগ্রহকারীর পরিবারের লোকজনও। দুইজন নমুনা সংগ্রহকারীর পরিবারের স্ত্রী, বৃদ্ধ বাবা ও অবুঝ দুই শিশুর শরীরে ও করোনা ভাইরাসের উপস্থিত পাওয়া গেছে। এছাড়াও করোনার উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণ করেন ৪ জন। এ উপজেলায় এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ী ফিরেছেন ২ জন।

রোগী বাড়ার পাশাপাশি করোনার উপসর্গ নিয়ে মৃতের সংখ্যাও দীর্ঘ হচ্ছে। এ পর্যন্ত চার জনের মৃত্যু হয়েছে। পাশাপাশি যথাযথ চিকিৎসায় ইতিমধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২জন করোনা রোগী। এভাবে দিন দিন করোনা পজিটিভ রোগী বাড়ায় সচেতন মহল আতংকিত উল্লেখ করে পটিয়ার হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ একেএম নাছির উদ্দীন বলেন, করোনা যেহেতু ছোঁয়াছে ভাইরাসজনিত রোগ সেহেতু শুরু থেকেই এ বিষয়ে সরকার ও প্রশাসন নানা সচেতনতা মূলক কার্যক্রম চালিয়েছে। কিন্তু সবকিছুকেই উদাসীনভাবে নিয়েছে জনসাধারণ । অবহেলা করায় প্রতিদিন বাড়ছে করোনা পজিটিভ রোগী। ধীরে ধীরে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যাও।

পটিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফারহানা জাহান উপমা বলেন,  জনসাধারণের উদাসীনতা আর অসচেতনতার কারনে পটিয়ায় করোনা রোগী বেড়েছে। সাধারণ মানুষ ও ব্যবসায়ীদের কথা চিন্তা করে সম্প্রতি সব ধরনের ঈদ মার্কেট বন্ধ ঘোষণার পর ও কিছু ব্যাবসায়ীরা আড়ালে দোকান  খোলা রেখেছে। মানুষ নিজ থেকে সচেতন হলে, ঘরে থাকলে রোগীর সংখ্যা কমিয়ে আনা সম্ভব।