রোববার, ৩১ মে ২০২০

চট্টগ্রামে আক্রান্ত সাতশ’ ছাড়াল

প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

প্রকাশিত: ১৭ মে ২০২০ রবিবার, ০৪:১৮ এএম

চট্টগ্রামে আক্রান্ত সাতশ’ ছাড়াল

চট্টগ্রামে ৫০৪টি নমুনা পরীক্ষায় ১০৯টি পজেটিভ এসেছে। এর মধ্যে ১০৫ জন নতুন রোগী। চট্টগ্রামে নতুন রোগী সনাক্ত হয়েছে ৭৫ জন। ৪জনের নমুনা দ্বিতীয় দফায় পজেটিভ এসেছে। এনিয়ে জেলায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ৭১৬ নারীপুরুষের শরীরে। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১০০ জন। অন্যদিকে মৃত্যু হয়েছে ৩২ জনের।

শনিবার (১৬ মে) চট্টগ্রামের তিনটি ল্যাব ও কক্সবাজারে নমুনা পরীক্ষায় করোনার এই সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে।

চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন সেখ ফজলে রাব্বি জানিয়েছেন, চট্টগ্রামের ফৌজদারহাটে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেজ (বিআইটিআইডি) ল্যাবে ২২১ জনের নমুনা পরীক্ষায় ২৮ জনের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ১৯ জন চট্টগ্রাম নগরীর এবং উপজেলা গুলোতে ৯ জন।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের (চমেক) ল্যাবে ৯১টি নমুনা পরীক্ষায় ৩৫ জনের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। সবাই চট্টগ্রাম জেলার বাসিন্দা।

এদিকে চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ের (সিভাসু) ল্যাবে ১৮৩টি নমুনা পরীক্ষায় ১২ জনের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। এদের মধ্যে সবাই চট্টগ্রামের বিভিন্ন উপজেলার।
অন্যদিকে কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চট্টগ্রাম জেলার ৯টি নমুনা পরীক্ষায় সবগুলো নেগেটিভ আসে।

শনিবার চট্টগ্রামে শনাক্তদের মধ্যে মহানগরের ১৯টি এলাকা ও জেলার ৫ উপজেলার মোট ৭৮জন রয়েছে।  এর মধ্যে চার চিকিৎসক, একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, একজন ওসি ও এক সাংবাদিক ছাড়াও রয়েছেন চট্টগ্রামের একজন শীর্ষস্থানীয় শিল্পপতি।

চট্টগ্রামে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বেসরকারি ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশনের স্টাফ রিপোর্টার আহসান রিটন। ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশনের ব্যুরো প্রধান অনুপম পার্থ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘গত ১০ তারিখ থেকে আমাদের সহকর্মী আহসান রিটন অসুস্থতা অনুভব করছিলেন। শনিবার তার নমুনার ফলাফল পজেটিভ এসেছে। এদিকে আমরা যারা হাউজে কর্মরত ছিলাম তাঁদের নমুনা পরিক্ষার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।’ এ নিয়ে চট্টগ্রামে মোট তিনজন সাংবাদিক করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সিনিয়র সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (আরডিসি) নাজমুন নাহার করোনা পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন শনিবার। চট্টগ্রামে প্রথম ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে করোনায় আক্রান্ত হলেন তিনি।

শনিবার যে চার চিকিৎসক শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হল তাদের দুজনের নন্দনকাননের বাসিন্দা। অন্য দুজনের একজন দক্ষিণ নালাপাড়া এবং অপরজন আগ্রাবাদ এলাকার বাসিন্দা।

এছাড়া সিএমপিতে করোনা ভাইরাস এর মধ্যে স্থায়ীভাবে বাসা বাধলেও প্রথমবারের মত চট্টগ্রাম জেলা পুলিশেও একজন করোনা পজিটিভ শনাক্ত হলেন কাল। জেলা পুলিশের প্রথম সদস্য হিসেবে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন সন্দ্বীপ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ শরীফুল ইসলাম।

চট্টগ্রামের ফৌজদারহাট বিআইটিআইডিতে ৩৩টি পজিটিভের মধ্যে চট্টগ্রামের ২৮টি ও অন্যজেলার পাঁচটি। চট্টগ্রামের ২৮টির মধ্যে মহানগরীর ১৯টি ও উপজেলার ৯টি ( হাটহাজারি ৪, সীতাকুন্ড দুই ও পটিয়া তিনজন)। মহানগরীর ১৯টির মধ্যে দামপাড়া পুলিশ লাইনের ৪৪, ২২, ৩৮, ৩৩, ৪৮ ও ৩০ বছর বয়সী ছয়জন, দামপাড়া পুলিশ লাইনের ১১ বছর বয়সী এক কিশোরী ও ৩৩ বছর বয়সী এক নারী রয়েছ।  কর্নেল হাটের ৩৪ ও ৫৯ বছর বয়সী দুই পুরম্নষ, বিআইটিআইডি এর ৭০ বছর বয়সী পুরম্নষ, আলকরণ এলাকার ৩ বছর বয়সী শিশু, ২৯ ও ৬৫ বছর বয়সী দুই নারী, ডবলমুরিং এলাকার ৩০ বছর বয়সী পুরম্নষ, আকবরশাহ মাজার এলাকার ৩৯ বছর বয়সী পুরম্নষ, ফিরোজশাহ গ্রীনটাওয়ারের ৩৪ বছর বয়সী নারী, পাঁচলাইশের ৬৬ বছর বয়সী পুরম্নষ ও কাজীর দেউরির ৪৫ বছর বয়সী নারী।

চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ ল্যাবে পজিটিভ ৩৮ জনের মধ্যে চট্টগ্রাম মহানগরীর ৩৫ জন ও উপজেলার তিন জন পুরাতন রোগী রয়েছেন। মহানগরীর ৩৫ জনের মধ্যে সিএন্ডবি চান্দগাও এলাকার ৩১ বছর বয়সী নারী ও ৪০ বছর বয়সী পুরম্নষ, আইসফ্যাক্টরি রোডের ৩৫ বছরের যুবক, ঠিকানাবিহীন আরেক যুবক, কোতোয়ালীর ৩৬ বছর বয়সী পুরম্নষ, পাথরঘাটা সিএমবি কলোনীর ৪৫ বছর বয়সী নারী ও একই এলাকার ৬৫ বছর বয়সী পুরম্নষ, বক্সিরহাটের ৩৫ বছর বয়সী পুরম্নষ, হালিশহরের ১৪ বছর বয়সী কিশোর ও ১৮ বছর বয়সী যুবক, ইপিজেড এলাকার ৩৬ বছর বয়সী নারী, আলকরণের ১৫ বছর বয়সী কিশোরী ও ২১ বছর বয়সী যুবক ও ৫৫ বছর বয়সী বৃদ্ধ, আগ্রাবাদের ৩১ বছর বয়সী যুবক, কোতোয়ালীর ৩৮ বছল বয়সী পুরম্নষ, উত্তর নালাপাড়ার ৮৭ বছর বয়সী বৃদ্ধ, নতুন চাক্তাইয়ের ৪০ বছর বয়সী পুরম্নষ, পাহাড়তলীর ৬০ বছর বয়সী নারী, পাথরঘাটার ৩২ বছর বয়সী পুরম্নষ, নতুন চান্দগাও থানা এলাকার ৩৮ বছর বয়সী পুরম্নষ, ইপিজেড এলাকার ২২ বছর বয়সী যুবতী, দামপাড়া পুলিশ লাইনের ৫৫ বছর বয়সী পুরম্নষ, কুয়াইশ কলেজের ৪০ বছর বয়সী পুরম্নষ, সদরঘাটের ৫৩ বছল বয়সী পুরম্নষ, দামপাড়ার ৩৫ বছর বয়সী পুরম্নষ, খলিফা পট্টির ২৬ বছর বয়সী যুবতী, কোতোয়ালীর ৬৬ বছর বয়সী পুরম্নষ, ডবলমুরিংয়ের ৩৮ বছর বয়সী পুরম্নষ,কোতোয়ালীর ৩৩ বছর বয়সী পুরম্নষ, চাঁন্দগাওয়ের ৪৫ বছর বয়সী যুবক, পাহাড়তলীর ৪৪ বছর বয়সী পুরম্নষ।

উপজেলার মধ্যে হাটহাজারীর ডাক বাংলো রোডের একই পরিবারের ৩ শিশু ও এক নারী আক্রান্ত হয়েছেন, যাদের বয়স যথাক্রমে ১২, ১৬, ৬ এবং ৩৫। হাটহাজারী কুয়াইশ কলেজে ৪০ বছর বয়সী পুরুষ এছাড়া সীতাকুণ্ড উপজেলার বারবকুন্ডে ২৪ বছরের পুরুষ, মৌলভীপাড়ায় ১৮ বছরের কিশোর, পটিয়ার ৩৬, ৫৩, ২১ ও ২৯ বছরের চারজন পুরুষ এবং ২৩ বছরের এক নারী রয়েছেন।
এর বাইরে সিভাসুর ল্যাবে শনাক্ত ১২ জনের মধ্যে হাটহাজারীর নয় জনের চারজনই একই পরিবারের সদস্য। তারা হাটহাজারী উপজেলার ছয় নং ওয়ার্ডের কাটাখালি এলাকার বাসিন্দা। বাকিদের একজন এক নম্বর ওয়ার্ডের সৈয়দ বাড়ির বাসিন্দা এবং আরেকজন দুই নম্বর ওয়ার্ডের মৌলভী আব্দুস সোবাহান বাড়ির বাসিন্দা। এছাড়া সন্দ্বীপ থানার ওসিও করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন।

দুই ল্যাব মিলিয়ে হাটহাজারীতে একদিনেই শনাক্ত হয়েছে ১৪জন। আর পটিয়ায় শনাক্ত হয়েছে ৫জন।

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র প্রয়াত এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর সহধর্মিনী ও চট্টগ্রাম মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী হাসিনা মহিউদ্দিন, তার ছোট ছেলে বোরহানুল হাসান চৌধুরী সালেহীনসহ তাদের পরিবারের একজন গৃহকর্মীর নমুনা দ্বিতীয় দফার পরীক্ষায় শনিবার (১৬ মে) আবার পজিটিভ এসেছে।