বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০১৯

ফটিকছড়িতে ‘ধর্ষণে ব্যর্থ’ হযে গৃহবধূকে খুন

প্রতিনিধি, ফটিকছড়ি, চট্টগ্রাম

প্রকাশিত: ১৪ এপ্রিল ২০১৯ রবিবার, ১১:১১ পিএম

ফটিকছড়িতে ‘ধর্ষণে ব্যর্থ’ হযে গৃহবধূকে খুন

চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে ধর্ষণে ব্যর্থ হযে এক গৃহবধূকে গলাকেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার (১৩ এপ্রিল) রাতে দেড়টার দিকে উপজেলার ভুজপুর থানার হারুয়ালছড়ি ইউনিয়নের মহানগর এলাকায় নরেন্দ্র কুমার দে`র বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে প্রবাসীর স্ত্রী এ গৃহবধুকে হত্যা করা হয় বলে জানান নিহতের জেঠাত  ভাই  ইন্দ্রজিৎ।

ওই গৃহবধূর চিৎকারে শ্বশুর এগিয়ে এলে দুর্বৃত্তরা তাঁকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে। তার নাড়িভুঁড়ি বেরিয়ে যায় বলে পুলিশ জানায়। গুরুতর আহতাবস্থায় মিলন কান্তিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ এ ঘটনায় তিনজন গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতার তিন যুবক হলো- সানি দে, চয়ন দে ও জয় দে।

নিহত মামুনি ধর (২৪) হারুয়ালছড়ি গ্রামের রূপক কান্তি দে’র স্ত্রী। রূপক বিদেশে থাকেন।

দুর্বৃত্তদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর আহত মামুনির শ্বশুর মিলন কান্তির দে গুরুতর আহত অবস্থায় এখন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

ভুজপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মো. আবদুল্লাহ জানান, রাত দেড়টার দিকে দুই দুর্বৃত্ত ওই গ্রামের নরেন্দ্র কুমার দের একতলা ভবনের সিঁড়ি ঘরের দেয়াল ভেঙে ঘরে ঢুকে ঘুমন্ত গৃহবধূকে গলায় ছুরি দিয়ে আঘাত করে। তাঁর চিৎকারে পাশের রুমে থাকা শ্বশুর মিলন কান্তি দে এবং শাশুড়ি রত্মা দে এগিয়ে এলে তাঁদের ওপরও হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। ঘটনাস্থলে ওই গৃহবধূ মারা যান। আহত মিলন কান্তিকে গুরুতর অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ভুজপুর থানার ওসি বলেন, এটি ডাকাতির ঘটনা নয়। পূর্বশত্রুতার জের ধরে এ খুনের ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। কারণ বাড়ি থেকে কোনো মালামাল ও টাকা খোয়া যায়নি।

এ ঘটনায় দুজনকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে জানান ওসি শেখ আবদুল্লাহ।