বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০১৯

প্রেমের বিরোধ মেটাতে গিয়ে যুবক খুন

প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

প্রকাশিত: ০৭ এপ্রিল ২০১৯ রবিবার, ০৯:১৪ পিএম

প্রেমের বিরোধ মেটাতে গিয়ে যুবক খুন

চট্টগ্রাম নগরীর বাকলিয়ায় এক যুবককে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। শনিবার গভীর রাতে নগরীর বাকলিয়া থানার খালপাড় এলাকায় এ খুনের ঘটনা ঘটে। নিহত লোকমান হোসেন (৩৫) নগরীর বাদশা মিয়া রোডের পশুশালা এলাকায় থাকতেন। সেখানে একটি কুলিং কর্নার আছে তার।

পুলিশ জানিয়েছে এলাকার কথিত ‘বড় ভাই’ হিসেবে কিশোরদের মধ্যে প্রেমের বিরোধ মেটাতে গিয়ে আরেক ‘বড় ভাই’য়ের গুলিতে তিনি খুন হয়েছেন। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপ-পরিদর্শক শীলব্রত বড়ুয়া জানান, রাতে গুলিবিদ্ধ লোকমানকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

জানা গেছে, `বড় ভাই` হিসেবে দুই কিশোরের প্রেম সংক্রান্ত বিরোধ মেটাতে গিয়ে খুনের শিকার হয়েছেন তিনি। এ ঘটনায় লোকমানের মা রোকেয়া বেগম বাদি হয়ে আটজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন। পরে বাকলিয়া এলাকা থেকে কৃষ্ণ ধর নামে এক আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
লোকমানের সঙ্গে ফুলতলা এলাকায় যাওয়া মো. বেলাল জানান, শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে লোকমান ও কয়েকজন বন্ধু মিলে নগরের গোলপাহাড় এলাকায় আড্ডা দিচ্ছিলেন। এসময় এলাকার ছোট ভাই জয় লোকমানের কাছে ফোন করে বলে তাকে বাকলিয়া খালপাড় ফুলতলা এলাকায় আটকে রেখেছে। ঘটনা কি হয়েছে জানতে লোকমানসহ দুইটি মোটরসাইকেলে করে ছয়জন বাকলিয়া খালপাড় ফুলতলা এলাকায় যায়। যারা তাকে আটকে রেখেছে তাদের সঙ্গে কথা বলেন তারা। এসময় হঠাৎ করে দুইতলা একটি বাড়ির ছাদ থেকে ৭-৮ রাউন্ড গুলি ছোঁড়া হয়। গুলির শব্দ শুনে এদিক ওদিক পালিয়ে যান তারা। কিছুক্ষণ ফিরে এসে দেখে লোকমানের মাথায় গুলি লেগেছে। তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই আলাউদ্দিন তালুকদার বলেন, রাত একটার দিকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় লোকমানকে হাসপাতালে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

পুলিশ জানায়, নগরের বাকলিয়া থানার খালপাড় ফুলতলা এলাকার কিশোর অনিকের সঙ্গে স্থানীয় এক কিশোরীর প্রেমের সম্পর্ক ছিল। এর মধ্যে গোলপাহাড় এলাকার কিশোর শ্রাবণের সঙ্গে ওই কিশোরীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এ কারণে মেয়েটি অনিককে এড়িয়ে চলে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে অনিক। শনিবার রাতে শ্রাবণের বন্ধু জয় গোলপাহাড় থেকে ফুলতলা এলাকায় গেলে অনিক ও তার সাঙ্গপাঙ্গরা তাকে আটকে রেখে মারধর করে। এক ফাঁকে জয় এলাকার বড় ভাই হিসেবে লোকমানকে ফোন করে। লোকমান তার কয়েকজন বন্ধু নিয়ে ওই এলাকায় যায়। কিশোরদের সঙ্গে কথা বলার সময় পাশের দুইতলা ভবন থেকে সাইফুল নামে একজন গুলি করে। সাইফুল চকবাজার এলাকার কথিত যুবলীগ নেতা নুর মোস্তফা টিনুর অনুসারী।

এ প্রসঙ্গে যুবলীগ নেতা দাবিদার নুর মোস্তফা টিনু বলেন, সাইফুল আমার অনুসারী এটা ঠিক আছে। কিন্তু সে যদি খুনের ঘটনায় জড়িত থাকে তাহলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হোক। তবে আমি শুনেছি ওই এলাকায় দুই পক্ষ গোলাগুলি করেছে। এ সময় এক যুবক গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।

নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (দক্ষিণ) শাহ মোহাম্মদ আবদুর রউফ বলেন, প্রাথমিক তথ্যে জেনেছি এক কিশোরীর সঙ্গে দুই কিশোরের প্রেম সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে খুন হয়েছেন লোকমান। যে বাড়ি থেকে গুলি করা হয়েছে বলা হচ্ছে সেটি সাইফুলের। এ ঘটনায় জড়িত হিসেবে যাদের নাম এসেছে তাদের ধরতে পুলিশের অভিযান চলছে।

বাকলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রণব চৌধুরী  বলেন, এ ঘটনায় লোকমানের মা বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। এক আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।