সোমবার, ২৭ মে ২০১৯

খাটিয়ায় চড়ে বিদ্যালয়ে জোবাইদার মরদেহ

প্রতিনিধি, আনোয়ারা , চট্টগ্রাম

প্রকাশিত: ১২ মার্চ ২০১৯ মঙ্গলবার, ১০:৪৯ পিএম

খাটিয়ায় চড়ে বিদ্যালয়ে জোবাইদার মরদেহ

আনোয়ারা পরৈকোড়া নয়নতারা উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী জোবাইদা আকতার স্কুলে উপস্থিত থাকতেন নিয়মিত। গ্রামের পথ ধরে কৈখাইন থেকে প্রতিদিন পায়ে হেটে হাজির হতেন স্কুলে। মঙ্গলবারও সে ঠিকই এসেছিল স্কুলে। তবে পায়ে হেঁটে নয়। শেষ বিদায়ের খাটিয়ায় চড়ে। আর সহপাঠিরা জোবাইদাকে শেষ বিদায় জানাল চোখের জলে।

শনিবার স্কুলে আসার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হওয়ার পর ৫৪ ঘন্টা মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে সোমবার বিকালে চলে যান না ফেরার দেশে। মঙ্গলবার সকালে  প্রথম নামাজে জানাযার জন্য খাটিয়ায় করে জোবাইদার মরদেহ নিয়ে আসা হয় তার প্রিয় স্কুল পরৈকোড়া নয়ন তারা উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে। সকাল ১০ টায় বিদ্যালয়ের মাঠে প্রথম জানাযার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা কালো ব্যাজ ধারণ করে জানাযায় অংশগ্রহণ করেন।

সকাল ১১টায় কৈখাইন এর নিজ বাড়ীতে দ্বিতীয় জানাযার চোখের জলে সবাই বিদায় জানান দশম শ্রেণির ছাত্রী জোবাইদাকে। গত শনিবার সকালে স্কুলে যাওয়ার পথে ছত্তারহাট-কালিগঞ্জ সড়কের জ্বালাকুমারী মন্দিরের মোড়ে বেপরোয়া সিএনজি অটোরিক্সার ধাক্কায় আহত হন জোবাইদা। ৫৪ ঘন্টা চমেক হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে গত সোমবার চলে যান না ফেরার দেশে।

স্কুল প্রাঙ্গনে জানাযাপূর্ব সমাবেশে বক্তব্য রাখেন পরৈকোড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সভাপতি মামুনুর রশিদ চৌধুরী আশরাফ, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সেলিম মামুন, সাবেক সভাপতি আজিজুল হক বাবুল,  প্রধান শিক্ষক দিলীপ কুমার নন্দী, শিক্ষক আব্দুর রহিম সৈকত প্রমুখ। এরপর সকাল  ১১ টায় বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা দুর্ঘটনার জন্য দায়ী ঘাতক চালকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও সড়ক দুর্ঘটনা বন্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের দাবিতে  মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করে।