শনিবার, ২৫ মে ২০১৯

হাটহাজারীতে বিকাশের ৭০ লাখ টাকা ছিনতাই

প্রতিনিধি, হাটহাজারী, চট্টগ্রাম

প্রকাশিত: ১০ মার্চ ২০১৯ রবিবার, ০৮:০৯ এএম

হাটহাজারীতে বিকাশের ৭০ লাখ টাকা ছিনতাই ছিনতাইয়ে ব্যবহৃত টেক্সি, ছিনতাইয়ের শিকার প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজার

চট্টগ্রামের হাটহাজারী সদরের ঈদগাহ এলাকায় চোখে মরিচের গুঁড়া ছিটিয়ে বিকাশের ডিস্ট্রিবিউটর মিজাব এন্টারপ্রাইজের ৭০ লক্ষ টাকা ছিনতাই হয়েছে। শনিবার রাত পৌনে ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। অফিস বন্ধ করে দিনের লেনদেনের টাকা নিয়ে বাসায় যাওয়ার সময় বাসার গেটের সামনে ম্যানেজারকে গলায় ফাঁস লাগিয়ে চোখে মরিচের গুঁড়া ছিটিয়ে ৩ ছিনতাইকারী টাকাভর্তি ব্যাগ নিয়ে সিএনজি ট্যাক্সিযোগে পালিয়ে যায়।

এলাকাবাসী-পুলিশ ধাওয়া করে ঘটনাস্থলের অদূরে এ ঘটনায় ব্যবহার করা সিএনজি ট্যাক্সিসহ চালককে আটক করলেও ছিনতাইকারীরা টাকার ব্যাগ নিয়ে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছে। তদন্তপূর্বক এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে থানা সূত্র জানিয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী, ঘটনার শিকার হওয়া ব্যবস্থাপক, ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, হাটহাজারী সদরের মেডিকেল গেটের নিকটে চট্টগ্রাম খাগড়াছড়ি মহাসড়কের পশ্চিম পাশে ডালিয়া-নুসরাত ভবনের (জেনারেল হাসপাতালের বিল্ডিং) ৮ তলায় ৮০২ এবং ৮০৩ নম্বর কক্ষে ব্রাক ব্যাংকের প্রতিষ্ঠান ‘বিকাশে’র হাটহাজারী এবং ফটিকছড়ি উপজেলার ডিস্ট্রিবিউটর মিজাব এন্টারপ্রাইজের কার্যালয়। মিজাব এন্টারপ্রাইজের মালিক ব্যবসায়ী মনজুর মোর্শেদ ফিরোজ। মিজাব এন্টারপ্রাইজের ম্যানেজার সাইফুল ইসলাম টিপু (৪৫) রাত প্রায় সাড়ে আটটার দিকে অফিস বন্ধ করে দিনের লেনদেনের ৭০ লক্ষ টাকাভর্তি ব্যাগ নিয়ে অফিসের নিকটবর্তী ঈদগাহ সংলগ্ন বাসায় যাচ্ছিলেন।

অফিসের পূর্বপাশে মহাসড়ক পার হয়ে আনুমানিক ৫শ গজ দূরত্বে টিপু তার নিজস্ব বাসা হাজী শাহ আলম মঞ্জিলের গেটের সামনে আসা মাত্র রাত প্রায় পৌনে নয়টার দিকে পূর্ব থেকে ওঁৎ পেতে তাকে অনুসরণ করে আসা ৩ ছিনতাইকারীর একজন তাকে পেছন থেকে অতর্কিত মোটা জিআই তার দিয়ে গলায় ফাঁস দেয়। এসময় ছিনতারীরা টিপুকে টাকার ব্যাগ ছেড়ে দেয়ার নির্দেশ দিয়ে বলে অন্যথায় তোকে মেরে ফেলব। এ সময় আত্নরক্ষার্থে টিপু গলার সামনে হাত দিলে অপর একজন ছিনতাইকারী তার চোখে মরিচের গুঁড়া ছিটিয়ে দিয়ে বলে শালাকে গুলি করে দে।

এ সময় টিপু ব্যাগ দিতে অস্বীকার করলে হ্যাচকা টান দিয়ে টাকাভর্তি ব্যাগ নিয়ে তিন ছিনতাইকারী পশ্চিম দিকে দৌড়ে সড়কের মাথায় ঈদগাহ প্রধান গেটের সামনে পূর্ব থেকে অপেক্ষমাণ সিএনজি ট্যাক্সিযোগে (চট্টগ্রাম থ -১৩-১৪৩৫) হাটহাজারী বাজারের দিকে যেতে থাকে। ছিনতাইকারীদের সাথে সাথে ছুটে আসা টিপু ট্যাক্সিটিকে ফলো করে।

চট্টগ্রাম হাটহাজারী সড়কে জ্যাম থাকায় ট্যাক্সিটি হাতিনার দিঘীর দক্ষিণ পাড় হয়ে শাহজালাল পাড়ার ভেতর দিয়ে পালিয়ে যেতে দেখে ম্যানেজার টিপু বিষয়টি এ এলাকার বিভিন্ন লোকজনকে মোবাইল ফোনে জানিয়ে দেয়। এসময় খবর পেয়ে এলাকাবাসী সড়কে ব্যারিকেড দিলে কামাল পাড়া এলাকায় খানসামা মসজিদের অদূরে সিএনজি থেকে লাফিয়ে ছিনতাইকারীরা টাকাভর্তি ব্যাগ নিয়ে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। এ সময় এলাকাবাসী সিএনজি ট্যাক্সি চালক সালাউদ্দিনকে (২৫) ছিনতাইকাজে ব্যবহৃত সিএনজি ট্যাক্সি (চট্টগ্রাম থ -১৩-১৪৩৫ সহ আটক করে পুলিশের নিকট হস্তান্তর করে।

জানতে চাইলে ঘটনার শিকার মিজাব এন্টারপ্রাইজের ব্যবস্থাপক সাইফুল ইসলাম টিপু বলেন, শনিবার ব্যাংক বন্ধ থাকায় দিনের লেনদেনের ৭০ লক্ষ টাকা আমার নিজস্ব বাসায় নিয়ে যাওয়ার পথে আমার বাসার গেটের সামনে ছিনতাইকারীরা অতর্কিত হামলা চালিয়ে টাকাভর্তি ব্যাগ ছিনতাই করে নিয়ে যায়। এর আগে মোটা জিআই তার গলায় পেঁচিয়ে আমাকে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা করে ছিনতাইকারীরা। আমি জীবনবাজি রেখে টাকাভর্তি ব্যাগ না ছাড়াতে আমার চোখে মরিচের গুঁড়া ছিটিয়ে দিয়ে হ্যাচকা টান দিয়ে টাকাভর্তি ব্যাগ নিয়ে ৩ ছিনতাইকারী সিএনজি ট্যাক্সিযোগে পালিয়ে যায়। পরে আমি ফোন করে এলাকাবাসীকে জানিয়ে দিলে জনতার ব্যারিকেডে ছিনতাইকাজে ব্যবহৃত টেক্সিসহ সিএনজি চালক আটক হয়।

ঘটনার পরপর হাটহাজারী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বেলাল উদ্দীন জাহাঙ্গীর ও ওসি তদন্ত শামীম শেখের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে। পুলিশ ঘটনাস্থলে আশপাশের বিভিন্ন ভবনের সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজসহ বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করে।

জানতে চাইলে হাটহাজারী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বেলাল উদ্দীন জাহাঙ্গীর ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এ ঘটনায় জড়িত থানার অভিযোগে পুলিশ সিএনজি ট্যাক্সিসহ চালককে আটক করেছে। এ ঘটনা তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান।