ঢাকা, শনিবার, ২১ অক্টোবর ২০১৭

মুস্তাফিজের আরো ভালোভাবে ফেরার অপেক্ষা

ক্রীড়া প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২৬ জুলাই ২০১৭ বুধবার, ০৭:৫৪ এএম

মুস্তাফিজের আরো ভালোভাবে ফেরার অপেক্ষা

কাঁধের অস্ত্রোপচারের পর থেকে পুরোনো ছন্দে নেই মোস্তাফিজুর রহমান। ইদানীং অনুশীলনে তার বোলিং অ্যাকশনে দেখা যাচ্ছে খানিকটা পরিবর্তনের ছোঁয়া। নতুন সংশয়, আগের মুস্তাফিজকে পাওয়া যাবে তো! শঙ্কার সেই মেঘ উড়িয়ে দিলেন পেস বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশ। ক্যারিবিয়ান কিংবদন্তি বললেন, সঠিক পথেই আছে ফিজ। সামনে আরও ভালোভাবে ফিরে আসবে।

‘আমি বলবো না সে নতুন অ্যাকশনে বোলিং করছে। তবে আমরা তাকে আরও ভারসাম্যপূর্ণ করার চেষ্টা করছি। স্টাম্পের আরও কাছ ঘেঁষে বল ছাড়তে বলছি। যদি খুব প্রয়োজন না হয় তার অ্যাকশনে পরিবর্তন করবো না। অস্ত্রোপচারের ফলে সে একটু পিছিয়ে পড়েছে। সে এটা জানে। গত কয়েকদিন, তার যা করা দরকার তাই করছে। ফিজ সঠিক পথেই আছে।’

অভিষেকের পর প্রায় টানা এক বছর সাফল্য পেয়েছেন মুস্তাফিজ। শুরুর সময়ে বিস্ময়কর সাফল্য দেখিয়ে ক্রিকেট বিশ্বে হইচই ফেলে দেন সাতক্ষীরার এই তরুণ। অস্ত্রোপচারের পর ফিরে নিউজিল্যান্ডে দুই ওয়ানডেতে ৪ উইকেট নিলেও চেনা ছন্দে দেখা যায়নি।

পরে শ্রীলঙ্কা সফরে ৩ ওয়ানডেতে ৬ উইকেট নিয়ে ছিলেন খরুচে। আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে ৩ ইনিংসে ৭ উইকেট। মনে হচ্ছিল চেনা রূপে ফিরছেন। কিন্তু চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে প্রত্যাশার কিছুই পূরণ করতে পারেননি। বোলিং ছিল বিবর্ণ, ধারহীন। চার ম্যাচ খেলে উইকেট মাত্র ১টি, রানও বিলিয়েছেন অকাতরে।

অথচ ২০১৫ সালে ভারতের বিপক্ষে ক্যারিয়ারের প্রথম দুই ওয়ানডেতেই ছিল ১১ উইকেট। এই বাঁহাতি পেসারের বিষাক্ত কাটারে নাকানিচুবানি খায় ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা। ‘কাটার মাস্টার’ হিসেবে খ্যাতি মেলে। ঘরের মাঠে সাউথ আফ্রিকা সিরিজেও দেখা গেছে সেই জাদুকরী বোলিং। ২০১৬ সালের আইপিএলে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের প্রথম শিরোপা জয়ে রেখেছিলেন বড় অবদান। ‘ফিজ, ফিজ’ রব ওঠে চারদিকে। এরপর সাসেক্সে খেলতে যেয়ে চোট, দীর্ঘ পুনর্বাসন। স্বরূপে ফেরার যুদ্ধ!

মুস্তাফিজকে সেই আগের ছন্দে ফেরানোর অ্যাসাইনমেন্ট নিয়েই কাজ করছেন ওয়ালশ। এক সপ্তাহে বেশ উন্নতিও দেখছেন এই ক্যারিবিয়ান কিংবদন্তি, ‘আমি দেখেছি ইংল্যান্ডে সে কিছুটা পতনের দিকে ছিল। সে ওখান থেকে বের হয়ে আসার চেষ্টা করছে। সঠিকভাবে অনুশীলন করছে। সে সেরা হতে চায়। আসলে সে বিশেষ এক প্রতিভা। তবে এই আবহাওয়া তাকে হতাশ করেছে, কারণ আমরা অগ্রগতির মধ্যে ছিলাম। আমি নিশ্চিত আরও ভালোভাবে ফিরে আসবে সে।’

ইংল্যান্ডে কাউন্টি দল সাসেক্সের হয়েও ভালো শুরু করেছিলেন। কাঁধের চোটে মাত্র দুটি ম্যাচ খেলতে পারেন। পরে ওখানেই অস্ত্রোপচার করানো হয়। ৬ মাস পুনর্বাসন প্রক্রিয়ার মধ্যে থাকার পর নিউজিল্যান্ড সিরিজে ফিজকে মাঠে দেখা যায়। তবে আগের সেই মোস্তাফিজকে কবে দেখা যাবে সেটাই বড় প্রশ্ন? ওয়ালসের কথায় কান পাতলে মনে হচ্ছে, অস্ট্রেলিয়া সিরিজেই মিলবে কোটি টাকার প্রশ্নটির উত্তর।