AD
ঢাকা, শুক্রবার, ২৮ জুলাই ২০১৭

হাথুরুসিংহেকে ভাগাতে চায় শ্রীলঙ্কা

ক্রীড়া প্রতিবেদক:
প্রকাশিত: ২৬ জুন ২০১৭ সোমবার, ০৭:২১ এএম
হাথুরুসিংহেকে ভাগাতে চায় শ্রীলঙ্কা

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ থাকা কোচ চণ্ডিকা হাথুরুসিংহের দিকে নজর দিচ্ছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড। দেশটির কোচ পদত্যাগ করার পর হাথুরুসিংহের সঙ্গে যোগাযোগ করছে তারা। শ্রীলঙ্কান গণমাধ্যম আইল্যান্ড এমন খবর প্রকাশ করেছে।

দ্বিতীয় মেয়াদে ১৫ মাস দায়িত্ব পালন করার পর শনিবার লঙ্কানদের কোচের পদ ছাড়েন গ্রাহাম ফোর্ড। দেশটির বোর্ড সভাপতি থিলাঙ্গা সুমাথিপালার দাবি, দুপক্ষের সমঝোতায় শেষ হয়েছে ফোর্ডের চুক্তি। কিন্তু ক্রিকইনফো জানাচ্ছে, কোচের কাজে বোর্ডের হস্তক্ষেপের জেরে ক্ষোভে পদ ছেড়েছেন ফোর্ড।

হাথুরুসিংহেও এক সময় শ্রীলঙ্কার সহকারী কোচ ছিলেন। তৎকালীন বোর্ড কর্মকর্তাদের সঙ্গে ঝামেলা করে তিনিও চাকরি ছেড়ে দেন। এরপর অস্ট্রেলিয়ায় সিডনি থান্ডার্সের দায়িত্ব নেন।

হাথুরুসিংহের সঙ্গে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) চুক্তি ২০১৯ সালের বিশ্বকাপ পর্যন্ত। তার অধীনে বাংলাদেশ ক্রিকেটবিশ্বের নতুন পরাশক্তি হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে। ওয়ানডে বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল খেলার পর চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সেমিফাইনাল খেলেছেন মাশরাফিরা। হাথুরু প্রায়ই বলেন, ২০১৯ সালের বিশ্বকাপে এই বাংলাদেশকে দিয়ে তিনি ক্রিকেটবিশ্বকে আরেকবার চমকে দিতে চান। যাওয়ার আগে এই বাংলাদেশকে ১৯৯৬ সালের ‘শ্রীলঙ্কা’ বানিয়ে যেতে চান।
মার্চে শ্রীলঙ্কা সফরে যেয়ে হাথুরু আবার নিজ দেশে ফেরার কথা বলেন। ওই সময় ক্রিকইনফোর সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেছিলেন, ‘যদি শ্রীলঙ্কা আমাকে স্মরণ করে, তাহলে অবশ্যই আমি ফিরবো।’

‘আমি আজকের অবস্থানে এসেছি শ্রীলঙ্কা দলে ক্রিকেট খেলেই। শ্রীলঙ্কায় সবকিছু শিখে আমি অস্ট্রেলিয়ায় পাড়ি দেই। সেখানেও অনেক কিছু শিখেছি। শ্রীলঙ্কা যদি আমাকে ডাকে, তাহলে আনন্দের সঙ্গে দেশর জন্য কিছু করতে চাইবো।’ বলেছিলেন হাথুরু।

হাথুরুসিংহের ওই বক্তব্য স্মরণ করে চিন্তায় পড়তে পারে বিসিবি। মাতৃভূমির ডাকে তিনি পেশাদারিত্বকে ‘না’ বলবেন কি না, সেটাই এখন দেখার বিষয়।